কম্পিউটার বিভাগ



Answered
0
0

আমি কম্পিউটার বিভাগে ৩য় পর্বে পড়ি আমাকে সবাই বলতেছে ডিপ্লোমা শেষে বেশিরভাগ বেকারই থেকে যায়। তো আমার একটা এখন প্রশ্ন কম্পিউটারে এমএস সফটওয়্যারের সকল কাজ এবং ফটোশপ ইত্যাদি সহজ কাজ সবাই করতে পারে এমনকি সাধারণ শিক্ষায় পাশ হওয়া শিক্ষার্থীরা ও কোর্স করে অল্প বেতনে কাজ করে এবং অনার্স পাশ করে ও কোর্স করে ব্যাংকে সহ বিভিন্ন স্থানে মোটামোটি বেতনে চাকরি করে। আমার কথা হলো আমি ডিপ্লোমা শেষ করে সম্ভাব্য কোথায় কোথায় কোন ধরনের কাজে চাকরি পেতে পারি বা যদি বিএসসি করি কিরূপ হবে।মোটকথা এখন আমি কম্পিউটারে কোন কাজে দক্ষ হলে চাকরি বা আয়করার কোন উপায় সম্ভব হবে। আর আমি কম্পিউটারের কোন কাজকে পারবো না এই রকম মনে করি না। এটা আমার কিছু চিন্তাধারা ভুল কিছু লিখলে  দয়া করে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন। plz ans diye help koron.

  • You must to post comments
Best Answer
0
0

প্রশ্নটি করার জন্য ধন্যবাদ আপনাকে।

ডিপ্লোমা শেষে অনেকেই বেকার থেকে যায় বা অনেকে চাকরী পাওয়ার পরও কয়েকদিন পর বেকার হয়ে যেতে হয়। এর পেছনে অবশ্যই যৌক্তিক কারন আছে। কম্পিউটার টেকনোলজি থেকে ডিপ্লোমা করার পর যেসব সেক্টরে আপনি কাজ করবেন সেখানে সার্টিফিকেটের চেয়ে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ন বিষয় হল আপনার স্কিল। অর্থাৎ আপনি যে পদে যোগ দিতে যাচ্ছেন সেই কাজে আপনি কতটা দক্ষ। এর জন্য আমি যেটা সাজেস্ট করবো তা হচ্ছে ডিপ্লোমা চলাকালীন সময়েই পড়াশোনার পাশাপাশি নিজেকে কোন একটা সেক্টরে দক্ষ করে তুলুন। কোন সেক্টরে কাজ করবেন সেটাও ঠিক করে নিন এবং এই সিদ্ধান্ত নেবার জন্য পর্যাপ্ত সময় নিন। আপনি যেহেতু এখন ৩য় পর্বে, আপনার সামনে এখনো অনেক সময় নিজের স্কীল ডেভেলপ করার জন্য।

এখন আসি কম্পিউটার টেকনোলজিতে ডিপ্লোমাধারীরা কি ধরনের কাজ করতে পারেন।

এক কথায় অনেক। আপনার সামনে অনেক ধরনের কাজ আছে, যেকোনটাই আপনি বেছে নিতে পারেন (আপনার যেধরনের কাজ ভালো লাগে সেটাকেই বেশি গুরুত্ব দিন)। যেমন –

১। হার্ডওয়ার বা নেটওয়ার্কিং

২। প্রোগ্রামিং (অনেক ধরনের প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ আছে তার মধ্য থেকে আপনি কি নিয়ে কাজ করবেন সেটা ঠিক করে সেই ল্যাংগুয়েজ শিখতে পারেন)। কয়েকটি কাজ যেমন –

ক) মোবাইল এপলিকেশন ডেভেলপমেন্ট (বিভিন্ন প্লাটফর্ম বিভিন্ন ল্যাংগুয়েজ ব্যবহার করে, যেমন এন্ড্রয়েড এর ক্ষেত্রে জাভা, উইন্ডোজ এর ক্ষেত্রে c#, আইওএস এর ক্ষেত্রে সুইফট। )

খ) ডেস্কটপ এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট

গ) ওয়েব ডেভেলপমেন্ট

৩। গ্রাফিক্স ডিজাইন ঃ এর মধ্যেও আবার বিভিন্ন সেক্টর আছে। যেমন –

ক) ওয়েব ডিজাইন

খ) প্রিন্ট ডিজাইন…

আরো অনেক কাজের ক্ষেত্র আছে। হয়তো অন্য কেউ এসে আরো কিছু বলবেন। তবে কথা একটাই এই সেক্টরে স্কিল থাকলে কাজের অভাব হবে না।  আমি যেগুলো উল্লেখ করলাম সেগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য গুগল ইউজ করুন ।

ধন্যবাদ।

 

  • You must to post comments
0
0

apnar ans pore amar onek balo laglo
many many thanks
karo help kora ba nije help neour jonno sobsomoy diplomazone.net er pase thakbo

  • You must to post comments
Showing 2 results
Your Answer

Please first to submit.

Copyright © 2015 DiplomaZone.net